বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০১:১৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

খ্রিস্টান সম্প্রদায় উপর নির্যাতন বন্ধে পাকিস্তানকে স্মারকলিপি প্রদান

রিপোটারের নাম / ২২১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

খ্রিস্টান সম্প্রদায়সহ সংখ্যালঘু জাতীগোষ্ঠীর উপর প্রহসন-নির্যাতন বন্ধে ব্লাসফেমি আইন বাতিলের দাবীতে পাকিস্তানকে স্মারকলিপি প্রদান

বিন্দু রোজারিও

নির্যাতনমূলক ব্লাসফেমি আইন বাতিল চেয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশন। গতকাল গুলশান-২ নম্বর গোলচত্বরে এক সমাবেশ শেষে দুপুরে পাকিস্তান দূতাবাসে স্মারকলিপি পৌঁছে দেন সংগঠনটির নেতারা। পাকিস্তানের খ্রিস্টানসহ অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর ব্লাসফেমি আইনের অপব্যবহার ও হয়রানি, নির্যাতন এবং মৃত্যুদন্ড- বন্ধসহ মানবাধিকার পরিপন্থী ব্লাসফেমি আইন অবিলম্বে বাতিলের জন্য জোর দাবি জানানো হয়েছে স্মারকলিপিতে এবং এ আইনে মৃত্যুদন্ড রায়প্রাপ্তদের ক্ষমা করার দাবি জানানো হয় সমাবেশে।
সম্প্রতি পাকিস্তানের আদালতে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী যুবক আসিফ পারভেজের বিরুদ্ধে মোবাইল এসএমএসে ধর্ম অবমাননাকর মন্তব্যের অভিযোগ এনে তাকে মৃত্যুদন্ডের রায় দেয় হয়। স্মারকলিপিতে তার প্রসঙ্গসহ খাইবার পাখতুনখাওয়ায় ব্লাসফেমি আইনে আরেক খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী ডেভিড মসিহকে অভিযুক্ত করার কথাও উল্লেখ করা হয়।
সত্যতা হলো পারভেজ তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। তার সুপারভাইজার টেক্সট মেসেজে মহানবীকে অবমাননার বানোয়াট অভিযোগ এনে তাকে এ আইনে ফাঁসানো হয়। আনার পর ২০১৩ সাল থেকে তিনি পুলিশ হেফাজতে আছেন বলে স্মারকলিপিতে বলা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

One response to “খ্রিস্টান সম্প্রদায় উপর নির্যাতন বন্ধে পাকিস্তানকে স্মারকলিপি প্রদান”

  1. Rosaline Costa says:

    Blasphemy law in Pakistan is a black law to attack the Christians. In most cases the action had been taken on false allegations and sometimes it has proved that the Christians were accused for vested interest such as to grab land, to evict the Christians, to take revenge, etc. The best proof of the abusive nature is the case of Asia Bibi who is now out of the country and is appealing to the PM of Pakistan to release all those who are in jail and they were accused false under this black law.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ