সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৬:৩১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

কালীগঞ্জে বাল্য বিয়ের অভিশপ্ত থেকে রক্ষা পেল চুপাইর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী

রিপোটারের নাম / ৩৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১২ মার্চ, ২০২২

কালীগঞ্জে বাল্য বিয়ের অভিশপ্ত থেকে রক্ষা পেল চুপাইর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী

স্থানীয় প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের কালীগঞ্জে মহিলা অধিদপ্তরের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ পন্ড করার সংবাদ পাওয়াগেছে । নুসরাত জাহান ইমা ও নাদিয়া রহমান এবং বিজিডির কর্ডিনেটর মো, কামাল হোসেন এরউপস্থিতি টের পেয়ে বর ও কনেসহ উভয় পক্ষের লোকজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। বর্তমানে বাড়ি ফেলে পলাতক রয়েছে।
বাল্য বিয়ের অভিশপ্ত থেকে রক্ষা পেল চুপাইর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাবেয়া আক্তার তন্নি (১৫) নামের এক কিশোরী।

জানা যায় শুক্রবার বিকেলে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের চুপাইর মধ্য পাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের স্কুল পড়–য়া মেয়ে রাবেয়া আক্তার তন্নি’র সাথে পার্শ্ববতী ইউনিয়নের পার্শ্ববর্তী বক্তারপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে ওবাইদুল কবীরের সাথে বিয়ে ঠিক হয়।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ উপজেলার মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহানাজ আক্তার বলেন- গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি চুপাইর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাবেয়া আক্তারের বাল্য বিয়ের আয়োজন করেছেন তার পরিবারের লোকজন। পরে উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের নির্দেশে কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন প্রকল্পের জেন্ডার প্রমোটার আবৃত্ত শিক্ষক নুসরাত জাহান ইমা ও নাদিয়া রহমান এবং বিজিডির কর্ডিনেটর মো, কামাল হোসেন তার সহযোগীদের নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌছলে তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান পন্ড করে কনে ও বর পক্ষের লোকজন পালিয়ে যায়। পরে প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ার আগে মেয়েকে বিয়ে দিবে না বলে মুচলেকা দেয় কণের পরিবারের লোকজন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ