শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০৪:৪১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চুমকি আপার পক্ষে নেত্রকোনায় ত্রান বিতরন পদ্মা সেতু উদ্ভাধন উপলক্ষে কালীগঞ্জে বিজয় র‌্যালী কালীগঞ্জে সেলাই মেশিন , কৃষকের মাঝে সার ও যুব উন্নয়নের ঋণ বিতরণ দেলদুয়ারে বিনামুল্যে সার বীজ বিতরণ কালীগঞ্জে পরিত্যক্ত ঘর থেকে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার আ’লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শ্যামনগরে শোভাযাত্রায় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ছেলে ও ছেলে বৌয়ের বিরুদ্ধে বাবা মা কে মারধোর অভিযোগ থানায় মামলা যান্ত্রিক এবং মানবিক ক্রুটি দূর করতে পারলে ইভিএম গ্রহণযোগ্য হবে কালীগঞ্জে সমন্বিত পরিকল্পনা প্রনয়ণ বিষয়ক কর্মশালা কালীগঞ্জে নারী উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে ভাতা বিতরণ 

এবার ভুয়া কনের কারাদণ্ড

রিপোটারের নাম / ৪০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৯ অক্টোবর, ২০২১

এবার ভুয়া কনের কারাদণ্ড

মুজিবুর রহমান :

ভ্রাম্যমাণ আদালতকে ফাকি দিতে ভুয়া কনে সাজানোর অপরাধে ভুআ কসেকে করাদন্ড দিয়েছে ব্রম্যমান আদালত। কনের বাবা আসল কনেকে সড়িয়ে চালাকির করে এঘটনা ঘটায়।যে, নিকটাত্মীয় এক তালাকপ্রাপ্ত তরুণীকে হাজির করেন কনে সাজিয়ে বসে রাভখন। বিষয়টি টের পেয়ে কাগজপত্র যাচাই বাছাই করতে গিয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য পেয়ে তখন কনের বাবার প্রতারণা বিষয়টি টের পায় । এই প্রতারণা ধরা পড়ার পর কনের বাবাকে সাতদিনের কারাদণ্ড এবং ভুয়া কনেকে পাঁচদিনের কারাদণ্ড দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রানুয়ারা খাতুন।আদালত।

ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাতে টাঙ্গাইল পৌরসভার কাগমারা এলাকার ওই বিয়ে বাড়িতে । অভিযান চালিয়ে এ দণ্ডাদেশ দেন
দণ্ডিত আব্দুস ছাত্তার। আর ভুয়া কনে এনি আক্তারকে। আরো জানা যায় বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পাওয়া মেয়েটি টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ধরেরবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

ওই প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার ইউএনও ওই ছাত্রীর বয়স সম্পর্কে তথ্য চেয়েছিলেন। পরে বিদ্যালয়ের ভর্তি রেজিস্টার অনুযায়ী ছাত্রীর তথ্য দেওয়া হয়।

ইউএনও এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রানুয়ারা খাতুন বলেন, পৌরসভার কাগমারা এলাকার গাড়িচালক আব্দুস ছাত্তারের মেয়ে ধরেরবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর বিয়ে ঠিক হওয়ার খবর পেয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় সেই বাড়িতে উপস্থিত হই। তখন প্রতারণার আশ্রয় নেন মেয়ের বাবা। কনে সাজিয়ে তালাকপ্রাপ্ত আত্মীয় এনি আক্তারকে সামনে হাজির করেন। এসময় এনি আক্তার তার বিয়ে হচ্ছে বলে দাবি করেন। এনি আক্তারের কাগজপত্র যাচাই-বাছাই শেষে তার বয়স দেখা যায় ২১ বছর। বিয়ে বাড়ি থেকে চলে আসার পর আবার বিয়ের আয়োজন শুরু হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ