বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০২:৩৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ

একটি পোষা প্রানি ও একটি অ-মান-হুষের কান্ড

রিপোটারের নাম / ১৫৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১

একটি পোষা প্রানি ও একটি অমান-হুষের কান্ড
মুজিবুর রহমান
কে করতে পারে এমন একটি জঘন্যতম কাজ, ধারনা করা হচ্ছে যে, কিছুদিন আগে পোষা কুকুর পন্টিকে বিষাক্ত কিছু খাইয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তকারী কথিত মানুষ । অনেকে ধারনা করছেন সুই কিংবা ধারালো কিছু খাবারের সাথে খাইয়ে এমন অবস্থা করে থাকতে পারে। জার জন্য বেশ কয়েকদিন কুকুর পন্টি কিছুই খেতে পারেনি। ফুড পয়জনিং ভেবে ডাক্তারের কথামত পন্টির মুখে ওষুধ ঢেলে দিতেই পন্টি কষ্ট করে ওষুধ গিলে এবং এর কিছুক্ষণ পরই ব্লাড বের হয়ে আসতে থাকে এভাবে কাতরাতে কাতরাতে মাটিতে লুটিয়ে পরে। ঘটনার এক সপ্তাহের পূর্ব থেকে সবকটি সিসিটিভি ফুটেজ চেক করেও কোন দুর্বৃত্তকারীকে সনাক্ত করতে পারিনি। ধারনা করা হয় বাউন্ডারী ওয়ালের বাইরে সুযোগ সন্ধনী দুর্বৃত্তকারী সময় বুঝে এই নোংরা ন্যাক্কারজনক অমানুষিক কাজটি করেছে বা নাও হতে পারে। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে নাগরী ইউনিয়নের উলুখোলা পোড়া বাড়ি বিন্দু সুমন রোজারিওর বাড়িতে।
ইতিপূর্বে কতিপয় দুর্বৃত্তকারী নেশাগ্রস্থ অবস্থায় মোটরসাইকেল নিয়ে শুটিংয়ের সময় ত্রাস সৃষ্টি করে শুটিংয়ে বিঘ্ন ঘটিয়েছিল। তাৎক্ষনিকভাবে উলুখোলা ফাঁড়ির আইসি (এসআই রেজাউল) প্রশাসনের বলিষ্ঠ ভুমিকা আর সহযোগিতায় একজন নিরীহ মিডিয়া কর্মীকে সুরক্ষা দিয়েছিল। এতে মনে হচ্ছে দুর্বৃত্তকারী এখন কৌশল পরিবর্তন করেছে। তবে প্রকৃত প্রমাণ ছাড়া কারো বিরুদ্ধে আমরা অভিযোগ আনছিনা। শুধু সচেতনতা ও শোধরানোর জন্য বলা যে, কারা করতে পারে এমন জঘন্য কূ-কাজ, আর এমন নিরীহ একটি প্রাণীকে কষ্ট দিয়ে মেরে কি লাভ হলো? সেতো ওই ঘাতকের কোন ক্সকি করেনাই বলে মনে হচ্ছে। আর যদি চুরি, ডাকাতি করার মত ইচ্ছা থাকে তাহলে নিজেদের নিরাপত্তার জন্য হয়তো করতে পারে।
একটি পশু হয়ে পন্টি এপর্যন্ত বিশটির অধিক শর্ট ফিল্মে অভিনয় করেছে। দুর্বৃত্তকারী পন্টিকে এভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করে প্রমাণ করল আমরা কিছু মানুষ পশুর চাইতেও অধম………?
অত্যন্ত দুঃখজনক যে, পোষ্টটি বিন্দু সুমন রোজারিওর ফেইসবুকে প্রকাশের পর পোষ্টটি ভাইরাল হয়ে যায়।
অত্যন্ত দুঃখজনক যে, পোস্টটি প্রকাশের পর কিছু শুভাকাঙ্খী ভুক্তভোগী কে জানালো, সমাজে প্রভাব বিস্তারকারী সুবিধাভোগী একটি শ্রেণি সংঘবদ্ধভাবে সমাজের দুর্বল, অসহায় বিশেষ করে হিন্দু খ্রীস্টান পরিবার যাদের জমিজমা কিংবা টাকা পয়সা আছে, তাদের টার্গেট করে পরিকল্পিতভাবে সমস্যা সৃষ্টি করে ক্রমান্বয়ে দুর্বল করে উদ্দেশ্য হাসিল করতে । তারাতো এদেশেরই মানুষ, এটা তার বাবা-মা-নিজের জন্মভুমি, তাই আপনার যেমন অধিকার তাদেরও তেমনি অধিকার আছে। লক্ষণীয় বিষয় দুটি অধিকার লেখার মধ্যে কোন পার্থক্য বা তফৎ নাই একই ধরনের। তাই সকলেরই এই সকল ক্ষেত্রে সচেতনতা ও সহযোগিতা প্রয়োজন। বর্তমান পরিস্থিতিতে টাক/পয়সা-অর্থ সম্পদ দিয়ে কি করবেন। মানুষের পাশাপাশি পশুকেও ভালোবাসেন সে যে কোন সময় আপনাকে ও আপনার পরিবারকে বিপদের হাত থেকে বাঁচাতে পারে।

ঘটনাটি ঘটেছে উলুখোলা পোড়াবাড়ি বিন্দু সুমন রোজারিওর বাড়িতে। বিন্দু সুমন রোজারিও পেশায় একজন নাট্যকার ও অভিনয় লিল্পী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ